Sale!

রবীন্দ্রচিঠি গ্রন্থমালা ১

মৃণালিনী দেবী (০১.৩.১৮৭৪Ñ২৩.১১.১৯০২)
কবি রবীন্দ্রনাথের সঙ্গে সম্পর্ক : স্ত্রী।
পিতৃদত্ত নাম : ভবতারিণী। জন্ম : ১ মার্চ ১৮৭৪। খুলনা জেলার দক্ষিণডিহির ফুলতলা গ্রাম। পিতা : বেণীমাধব রায়চৌধুরী। মা : দাক্ষায়ণী দেবী। বিবাহ : ৯ ডিসেম্বর ১৮৮৩। দশ বছর বয়সে। কবির বয়স তখন বাইশ। পড়াশুনো : গ্রামের পাঠশালায়। প্রথম বর্গ পর্যন্ত। মহর্ষি দেবেন্দ্রনাথের আদেশে ১৮৮৪-৮৫ : লরেটো হাউসে ইংরেজিশিক্ষা। ১৮৮৫-৮৬ : কবির আগ্রহে মহর্ষিভবনে পÐিত হেমচন্দ্র বিদ্যারতেœর নিকট সংস্কৃত-শিক্ষালাভ। ১৮৮৯ অক্টোবর-নভেম্বর : কবির সদ্য প্রকাশিত রাজা ও রাণী নাটকের প্রথম মঞ্চাভিনয়ে ‘নারায়ণী’র ভ‚মিকায় সার্থক অভিনয়। ১৮৮৯ নভেম্বর-ডিসেম্বর : স্বামী সন্তানসহ শিলাইদহে পদ্মাবক্ষে ‘পদ্মা’ বোটে বাস। ১৮৯৯-১৯০১ : শিলাইদহে বাস। ২৩ নভেম্বর ১৯০২ : জোড়াসাঁকো মহর্ষিভবনে পরলোকগমন। তখন কবির বয়স ৪১ বছর। সন্তানাদি : ৩ কন্যা, ২ পুত্র। প্রথম সন্তান : বেলা বা মাধুরীলতা। জন্ম : ২৫ অক্টোবর ১৮৮৬। দ্বিতীয় সন্তান : রথীন্দ্রনাথ। জন্ম : ২৭ নভেম্বর ১৮৮৮। তৃতীয় সন্তান : রানী বা রেণুকা। জন্ম : ২৩ জানুয়ারি ১৮৯১। চতুর্থ সন্তান : মীরা বা অতসীলতা। জন্ম : ১২ জানুয়ারি ১৮৯৩। পঞ্চম ও সর্বশেষ সন্তান : শমীন্দ্রনাথ। জন্ম : ১৩ ডিসেম্বর ১৮৯৪।

৳ 100.00 ৳ 80.00

In stock

Book Details

Weight .200 kg
Dimensions .3 × 5.5 × 8.2 in
Language

Binding Type

Publishers

Release date

Pages

Height

8.2

Width

5.5

About The Author

Rabindranath Tagore

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর জন্ম : ২৫ বৈশাখ ১২৬৮/ ৭ মে ১৮৬১; মৃত্যু ২২ শ্রাবণ ১৩৪৮ / ৭ আগস্ট ১৯৪১ ॥ জন্ম ও মৃত্যু : কলকাতায় জোড়াসাঁকেfর পৈতৃক বাড়িতে। বিস্ময়কর ও সর্বগ্রাসী প্রতিভাধর বাঙালি এই কবির নানা অভিধা : কবি : দার্শনিক ॥ শিক্ষাবিদ ॥ গীত-রচয়িতা ॥ সুরকার ॥ কণ্ঠশিল্পী ॥ নাট-প্রহসন-রচয়িতা ॥ অভিনেতা ॥ ঔপন্যাসিক ॥ গল্পকার ॥ প্রবন্ধকার ॥ পত্রিকা-সম্পাদক ॥ চিত্রশিল্পী ॥ কৃষি-উদ্ভিদবিদ্যা-বিজ্ঞানবিষয়ক রচনকার ॥ সমবায়-কৃষিব্যাংক ধারণার প্রবর্তক ॥ সমাজসংস্কারক ॥ পর্যটক। বিপুল রচনাসম্ভারে রয়েছে কবিতাগ্রন্থ (গান ও কাব্যনাট্য বাদে) : ৬৫টি। গান : প্রায় ২ হাজার ৫ শো ॥ ছোটগল্প ১১৯টি ॥ উপন্যাস ১৩টি। নাটক (কাব্যনাট্য-পদ্যনাটক-নৃত্যনাট্য-প্রহসন) : ৫০টি ॥ ভ্রমণকাহিনী : ৯টি ॥ শিশুসাহিত্য : ৯টি। চিত্রকলা : প্রায হাজার ॥ দেশ-বিদেশে অনেকবার চিত্রপ্রদর্শনী হয়, যেমন প্যারিসে (১৯৩০), বোম্বাইয়ে (১৯৩৩)। বাংলাদেশ ও ভারত দুই দেশেরই জাতীয়-সংগীত-রচয়িতা। এশিয়ার প্রথম বাঙালি নোবেল-পুরস্কার-বিজয়ী। গীতাঞ্জলি কাব্যগ্রন্থের জন্য এ পুরস্কার লাভ : ১৩ নভেম্বর ১৯১৩। পেয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়িক সম্মান : অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় (হিবার্ট বক্তৃতা ১৯৩০, ডি. লিট উপাধি ১৯৪০) ॥ কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় (বিশ্ববিদ্যালয় (ডি. লিট. উপাধি ১৯১৩, জগত্তারিণী স্বর্ণপদক ১৯২১, কমলা বক্তৃতা ১৯৩৩, রামতনু লাহিড়ী অধ্যাপক ১৯৩২-৩৪) ॥ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ডি. লিট. উপাধি ১৯৩৬) ॥ ওসমানিয়া বিশ্ববিদ্যালয় (ডি. লিট. উপাধি ১৯৩৮) ॥ হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয়, কাশী (ডি. লিট. উপাধি ১৯৩৫) ॥ অন্ধ্র বিশ্ববিদ্যালয় (কৃষ্ণস্বামী বক্তৃতা ১৯৩৩)। জমিদারি তদারকিতে বাংলাদেশে শিলাইদহ, সাজাদপুর ও পতিসরে অবস্থান : প্রধানত উনবিংশ শতাব্দির শেষ দশক এবং অনিয়মিতভাবে বিংশ শতাব্দির প্রথম ও দ্বিতীয় দশক।

ঢাকায় আগমন : এক প্রাদেশিক সম্মেলনে যোগদান (১৮৯৮) ॥ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বক্তৃতাদান (১৯২৬)।

শান্তিনিকেতনে ব্রহ্মচর্যাশ্রম প্রতিষ্ঠা : ডিসেম্বর ১৯০১।

শান্তিনিকেতনে বিশ্বভারতী প্রতিষ্ঠা : ১৯২১।

শ্রীনিকেতনে পল্লিগ্রাম পুনর্নির্মাণ শিক্ষালয় প্রতিষ্ঠা : ১৯২২।

বঙ্গভঙ্গের প্রতিবাদ : ১৯০৫।

জালিয়ানওয়ালাবাগে হত্যাকান্ডের প্রতিবাদে নাইটহুড (স্যার) উপাধি প্রত্যাখ্যান : ১৯১৯।

নোবেল পুরস্কারের টাকা পতিসরে কৃষিব্যাংক প্রতিষ্ঠা ও অন্যান্য জনহিতকর কাজে ব্যয় করেন

রবীন্দ্রনাথের বিশাল সৃষ্টিভুবন থেকে
বিষয়ানুগ আগ্রহী পাঠকের জন্য
শতাধিক বইয়ের সমাহার—
পাঠক সমাবেশ-এর নিবেদন :
পাঠক সমাবেশ রবীন্দ্রচিঠি গ্রন্থমালা

বর্তমান গ্রন্থে (গ্রন্থমালা ১) সংকলিত হল
মৃণালিনী দেবীকে লেখা রবীন্দ্রচিঠি।
অন্তর্ভূত চিঠিসংখ্যা : ৩৬

চিঠির বিষয় : বেশির ভাগ চিঠিতেই নিজের সংসারের প্রতি কবির ভালোবাসা উচ্ছলিত। অন্যান্য বিষয় : কৌতুক, জমিদারি, সমাজ, পত্রশৈলী, দুঃখ-আঘাত, প্রকৃতি, ভ্রমণ, মৃত্যু ইত্যাদি।

এ-বইতে মৃণালিনী দেবীকে লেখা ৩৬টি রবীন্দ্রচিঠির পাশাপাশি ৩টি চিঠির হস্তলিপি মুদ্রিত হল। এছাড়া বইয়ের শেষে পৃথক অংশে সংযোজন করা হল কবির সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত কয়েকটি আলোকচিত্র ও পাÐুলিপিচিত্র।

Reviews

There are no reviews yet.

Be the first to review “রবীন্দ্রচিঠি গ্রন্থমালা ১”

Your email address will not be published. Required fields are marked *